১৯শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং | ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১:২৮

চিত্রশিল্পী শাহাবুদ্দিন আহমেদের ৬৯তম জন্মদিন আজ

কাদামাটি ডেস্ক: মুক্তিযোদ্ধা ও আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন চিত্রশিল্পী শাহাবুদ্দিন আহমেদের ৬৯তম জন্মদিন আজ। ১৯৫০ সালের ১১ সেপ্টেম্বর তিনি ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন। বড় ক্যানভাসে সংগ্রামী মানুষের গতিশীল ও পেশিবহুল ছবি আঁকতে ভীষণ পছন্দ তার। একজন মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে শাহাবুদ্দিন এখনও বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা তার ছবিতে রঙ ও কম্পোজিশনে অতুলনীয়ভাবে উপস্থাপন করে চলেছেন। তার ছবির মুখ্য বিষয় হলো সমসাময়িক মানুষ। তার রেখার টান এবং স্থিতির জন্য তার স্কেচগুলো শক্তিশালী। বিশেষ করে তার চারকোণ স্কেচ খুবই দৃষ্টিনন্দন ও সজীব। তিনি অনবরত আঁকেন বঙ্গবন্ধু, মহাত্মা গান্ধী, রবীন্দ্রনাথকে। তিনি শুধু তাদের পোর্ট্রেটই করেন না; তাদের মধ্যে ঢুকিয়ে দেন মানবীয় অনুভূতি, আবেগ এবং আত্মপ্রকাশ।
তিনি প্যারিসে বসবাস করলেও বাংলাদেশেই থাকতেই বেশি পছন্দ করেন। ১৯৭৩ সালে ফরাসি সরকারের বৃত্তি পেয়ে প্যারিসে যান, তারপর সেখানেই থিতু হয়েছেন। দেশ-বিদেশে নামকরা বহু গ্যালারিতে তার একক ও যৌথ চিত্রকমের প্রদর্শনী হয়। এর মধ্যে ১৯৭৪ সালের ভয়াবহ বন্যায় আক্রান্তদের অর্থ সাহায্যের জন্য ঢাকায় চারু ও কারুকলা মহাবিদ্যালয়ে চিত্রপ্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়।
শাহাবুদ্দিন আহমেদের বিভিন্ন চিত্রকর্ম বাংলাদেশসহ বুলগেরিয়া, তাইওয়ান, সুইজারল্যান্ড, দক্ষিণ কোরিয়া, ফ্রান্সের বিভিন্ন প্রখ্যাত গ্যালারি, সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে সংরক্ষিত আছে। প্রধানমন্ত্রী, রাষ্ট্রপতি স্বর্ণপদক, বাংলা একাডেমি পুরস্কার, শিল্পকলা একাডেমি পুরস্কার, ইউনেস্কো পুরস্কার, স্বাধীনতা পুরস্কারসহ নানা পুরস্কার ও সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন এই শিল্পী।
বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমী চারুকলা বিভাগের পরিচালক শিল্পী আশরাফুল আলম পপলু বলেছেন, শিল্পী শাহাবুদ্দিন আহমেদ তার চিত্রকর্মের মধ্য দিয়ে সারাবিশ্বে বাংলাদেশকে পরিচিত করেছেন।

প্রকাশ :  সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৮ ১:০২ পূর্বাহ্ণ
x

Check Also

আমার কিছু দুঃখ ছিল!

মিনু গরেট্টী কোড়াইয়া তার ক্ষীণভাগ তোমায় দিতে চেয়ে ফিরে গেছি বারবার; কিছু কষ্টের গানও ছিল ...